ads

ই-লাইসেন্সিং ও ই-লার্নিং সেবা নিয়ে এলো বায়রা

ই-লাইসেন্সিং

নিজস্ব প্রতিবেদক, সংবাদ২৪.নেট, ঢাকা : জিডিটাল বাংলাদেশের পথে এক ধাপ এগিয়ে গেল সরকারের গুরুত্বপূর্ন প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ পরমানু শক্তি নিয়ন্ত্রন কর্তৃপক্ষ (বায়রা)। জিডিটালাইজ হলো দেশের সকল তেজস্ক্রিয় বা বিকিরণ উৎস ও বিকিরণ উৎপাদনকারী যন্ত্রপাতির যন্ত্রপাতির লাইসেন্স প্রদানসহ ও প্রশিক্ষন কার্যক্রম।

 
যার ফলে সেবা পেতে আর দীর্ঘ দৌড়ঝাপ, সময় ও অর্থ অপচয় নয় বরং কর্তৃপক্ষ ‘ই-লাইসেন্সিং ও ই-লার্নিং’ সেবা নিয়ে যাবে প্রতিটি মানুষের দোরগোরায়। স্টেকহোল্ডাররা মুহুর্তেই লাইসেন্সের জন্য প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। মোবাইলেই জানতে পারবেন লাইসেন্সের হালনাগাদ তথ্য। গ্রাহকরা রেগুলেটরী ফিও দিতে পারবেন অনলাইনে।

 

 
উদ্যোগকে জিডিটাল বাংলাদেশ গড়ার পথে বিশাল অগ্রগতি বলে অভিহিত করছেন সংশ্লিষ্টরা। বৃহস্পতিবার আগারগাওয়ে বাংলাদেশ বাংলাদেশ পরমানু শক্তি নিয়ন্ত্রন কর্তৃপক্ষের কার্যালয়ে আনুষ্ঠাননিকভাবে ‘ই-লাইসেন্সিং ও ই-লার্নিং সিস্টেম অব বায়রা’ নামের এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেছেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান।

 

 
প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এটুআই প্রোগ্রামের সার্ভিস ইনোভেশন ফান্ডের সহায়তায় বায়রা নতুন এ উদ্যোগ বাস্তবায়ন করছে। কার্যক্রমের উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজন করা হয়েছিল একটি বিশেষ কর্মশালা। যেখানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান।

 

 
পরমানু শক্তি নিয়ন্ত্রন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. নঈম চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক (প্রশাসন) মোঃ খলিলুর রহমান। প্রকল্পের সারসংক্ষেপ উপস্থাপন করেন পরমানু শক্তি নিয়ন্ত্রন কর্তৃপক্ষের সদস্য অধ্যাপক ডা. সাহানা আফরোজ। কারিগরি উপস্থাপনায় ছিলেন পরমানু শক্তি নিয়ন্ত্রন কর্তৃপক্ষের উর্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা সোমা শীল ও এরোবিল লিমিটেডের মোজাহিদ হোসেন।

 

 
আরো বক্তব্য রাখেন পরমানু শক্তি নিয়ন্ত্রন কর্তৃপক্ষের প্রধান প্রকৌশলী ও ইরোভেশন অফিসার ড. দেবশীষ দত্ত।

 

 
বিশাল এ সেবা কার্যক্রমের উদ্বোধন করে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এ সরকার দেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশে রূপান্তর করেছে। এটি আজ বাংলাদেশের বাস্তবতা। আর ইতোমধ্যে এর সুফল সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় পৌছে গেছে।

 

 

বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ সারাদেশে তেজস্ক্রিয় বা বিকিরণ উৎস ও বিকিরণ উৎপাদনকারী যন্ত্রপাতির ব্যবহার, পরিবহণ, আমদানি-রপ্তানি, তেজস্ক্রিয় বর্জ্য-ব্যবস্থাপনা ও অন্যান্য কাজের ক্ষেত্রে বিভিন্ন শ্রেণির লাইসেন্স প্রদান করে থাকে। পাশাপাশি এসবের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মী-কর্মকর্তা ও অন্যান্য ব্যক্তিবর্গকে তেজস্ক্রিয়তার ক্ষতিকর দিক ও সুরক্ষার উপায় সম্পর্কে সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ সেবা প্রদান করে।

 
জানা গেছে, এখন থেকে এ দুটি সেবা অনলাইনেই পাওয়া যাবে। অনলাইনে লাইসেন্সের জন্য বষষং.নধবৎধ.মড়া.নফ ও প্রশিক্ষণের জন বষবধৎহরহম.নধবৎধ.মড়া.নফ ওয়েবসাইটে আবেদন করা যাবে। লাইসেন্সিং এবং প্রশিক্ষণ প্রক্রিয়া অনলাইন সিস্টেমে রূপান্তরের ফলে জনগণ সহজেই এ দুটি সেবা গ্রহণ করতে পারবেন। আয়নায়নকারী বিকিরণের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে জনসাধারণ ও পরিবেশের সুরক্ষার লক্ষ্যে একটি দীর্ঘমেয়াদি ও টেকসই নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে বর্তমান সরকারের অঙ্গীকার পূরণে বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ প্রচেষ্টা বদ্ধ মন্তব্য করে প্রতিষ্ঠানটির বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, দেশব্যাপী সকল প্রকার বিকিরণ সংশ্লিষ্ট কর্মকান্ড নিয়ন্ত্রণে বিকিরণ উৎস ও বিকিরণ সংশ্লিষ্ট যন্ত্রপাতির পরিদর্শন সাপেক্ষে লাইসেন্স প্রদান এর মাধ্যমে এই নিয়ন্ত্রণ মূলক কর্মকান্ড পরিচালিত হয়।

 
এছাড়া আমদানি রপ্তানি পারমিট ও ঘঙঈ প্রদানের মাধ্যমে বিকিরণ উৎস ও বিকিরণ যন্ত্রপাতি দেশে প্রবেশ এবং বহির্গমন নিয়ন্ত্রণ করা হয়। নতুন উদ্যোগ সম্পর্কে পরমানু শক্তি নিয়ন্ত্রন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কর্তৃপক্ষের লাইসেন্স প্রদান ও প্রশিক্ষণ সংক্রান্ত সেবার জন্য একটি অন-লাইন সিস্টেম প্রস্তুত করা হয়েছে। প্রস্তুৃত সিস্টেমে কর্তৃপক্ষেক্ষের সেবা প্রক্রিয়া সহজ হবে। ই-লাইসেন্সিং এর মাধ্যমে স্টেকহোল্ডাররা খুব সহজেই লাইসেন্সের জন্য দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। সেবা সংক্রান্ত নিয়ন্ত্রণমূলক মোবাইল এ্যাপস্ এর মাধ্যমে স্টেকহোল্ডাররা খুব সহজেই মোবাইল এর মাধ্যমে লাইসেন্সের হালনাগাদকৃত তথ্যাদি জানতে সক্ষম হবেন। অনলাইনে পেমেন্ট সিস্টেম দ্বারা গ্রাহকরা রেগুলেটরী ফি অনলাইনে প্রদান করতে পারবেন।

 

 
বিকিরণ নিয়স্ত্রণ কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ এবং পরীক্ষার আবেদন অনলাইনে চালুর ফলে দেশব্যাপী বিকিরণ স্থাপনায় কর্মরত বিকিরণ নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ ও পরীক্ষার আবেদনসহ ফি জমাদানের জন্য আবেদনকারীকে কর্তৃপক্ষ ভবনে আসতে হবে না।

Facebook Comments

এ সংক্রান্ত আরো খবর




সম্পাদক: আরিফা রহমান

২৮/এফ ট্রয়োনবী সার্কুলার রোড, ৫ম তলা, মতিঝিল, ঢাকা।
সর্বক্ষণিক যোগাযোগ: ০১৭১১-০২৪২৩৩
ই-মেইল ॥ sangbad24.net@gmail.com
© 2016 allrights reserved to Sangbad24.Net | Desing & Development BY Popular-IT.Com, Server Manneged BY PopularServer.Com