ads

ম্যারিকো বাংলাদেশ লিমিটেডের ১৬তম বার্ষিক সাধারণ সভা

ম্যারিকো বাংলাদেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, সংবাদ২৪.নেট
ম্যারিকো বাংলাদেশ লিমিটেডের (এমবিএল) ১৬তম বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) মঙ্গলবার র্যাডিসন ব্লু ঢাকা ওয়াটার গার্ডেন হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এমবিএল হচ্ছে শীর্ষস্থানীয় এফএমসিজি ও এমএনসি কোম্পানিগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি।

বর্তমানে বাংলাদেশে রুপচর্চা, বিউটি ও ওয়েলনেস পণ্য বিপণনের ক্ষেত্রে এমবিএল একটি অত্যন্ত বিশ্বস্ত নাম।

ম্যারিকো বাংলাদেশ লিমিটেডের বার্ষিক সাধারণ সভায় কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান জনাব সৌগত গুপ্ত সভাপতিত্ব করেন।

সভায় ম্যারিকো বাংলাদেশের নতুন ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) জনাব নবীন পান্ডে, পরিচালনা পর্ষদের সদস্যদের মধ্যে জনাব সঞ্জয় মিশ্রা ও স্বতন্ত্র পরিচালক মিস রোকিয়া আফজাল রহমান, জনাব মাসুদ খান ও আশরাফুল হাদিসহ কোম্পানির ঊর্দ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এজিএম থেকে কোম্পানির শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ৫০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ (প্রতিটি শেয়ারের বিপরীতে ৫ টাকা করে) অনুমোদন করা হয়েছে। এর আগে কোম্পানির বিগত অর্থবছরের প্রথম তিন প্রান্তিকে শেয়ারহোল্ডারদের জন্য অন্তর্বর্তীকালিন ৪০০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ (প্রতিটি শেয়ারের বিপরীতে ৪০ টাকা) ঘোষণা ও বিতরণ করা হয়েছে। ফলে চলতি ২০১৬ সালের ৩১ মার্চে সমাপ্ত অর্থবছরে ম্যারিকো বাংলাদেশের অনুমোদিত মোট লভ্যাংশের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৪৫০ শতাংশ (প্রতি শেয়ারে ৪৫ টাকা)।

সভায় বক্তব্য প্রদানকালে ম্যারিকো বাংলাদেশের চেয়ারম্যান সৌগত গুপ্ত কোম্পানির কার্যক্রমের সফলতা তুলে ধরে বলেন, “আমরা আমাদের ব্যবসায়িক প্রবৃদ্ধি অর্জন ও উত্তোরণের কৌশলগত এজেন্ডা নিয়ে এগিয়ে চলেছি। আমরা আমাদের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করেছি। ফলে আমাদের স্টেকহোল্ডার বা অংশীজনদের প্রত্যাশা অনুযায়ী আমরা অন্যদের চেয়ে পার্থক্য তৈরিতে সক্ষম হয়েছি।”

তিনি জানান, আলোচ্য অর্থবছরে ম্যারিকো বাংলাদেশ কর-পরবর্তী নিট মুনাফা অর্জন করেছে ১৪১ কোটি টাকা। আর মোট আয় হয়েছিল ৭৩৪ কোটি টাকা। আলোচ্য বছরে ম্যারিকো বাংলাদেশের শেয়ারপ্রতি আয় বা ইপিএসের পরিমাণ বেড়ে দাঁড়ায় ৪৫ টাকা।

ম্যারিকো বাংলাদেশ লিমিটেডের বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) কোম্পানির বিপুলসংখ্যক শেয়ারহোল্ডার উপস্থিত ছিলেন। সভায় কোম্পানির পক্ষ থেকে উপস্থাপিত সবগুলো এজেন্ডা সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদিত হয়। এজিএমে অনুমোদিত উল্লেখযোগ্য এজেন্ডাগুলো ছিল কোম্পানির পরিচালকমন্ডলীর প্রতিবেদন ও অডিটর রিপোর্ট বা নিরীক্ষা প্রতিবেদন অনুমোদন, ২০১৫-১৬ অর্থবছরের অডিটেড ফিন্যান্সিয়াল রিপোর্ট বা নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুমোদন, নির্বাচন/পুনঃনির্বাচন, পরিচালক নিয়োগ এবং স্বতন্ত্র অডিটর বা নিরীক্ষক নিয়োগ অনুমোদন। এছাড়া সভায় কোম্পানির আর্টিকেলস অব অ্যাসোসিয়েশন বা সংঘ বিধি পরিবর্তনের বিষয়টিও ছিল এজেন্ডায়। ২০০৯ সালে বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়ার পর এটি হলো ম্যারিকো বাংলাদেশ লিমিটেডের সপ্তম এজিএম।

সভায় জানানো হয়, বিগত অর্থবছরে ম্যারিকো বাংলাদেশ কর, মূল্য সংযোজন কর (মূসক বা ভ্যাট) ও ডিউটি বা শুল্ক বাবদ সরকারের কোষাগারে মোট ১৮০ কোটি টাকা জমা দিয়েছে। আলোচ্য বছরে ঢাকা আহসানিয়া মিশনের (ডিএএম) সহযোগিতায় ম্যারিকো বাংলাদেশ তার সামাজিক দায়বদ্ধতা বা সিএসআর কার্যক্রমও অব্যাহত রাখে। এর আওতায় ৩ হাজারেরও বেশি সুবিধা বঞ্চিত ও স্কুলে না যাওয়া শিশুকে বিনামূল্যে শিক্ষার সুযোগ করে দিতে ৭৫টি চিল্ড্রেন লার্নিং সেন্টার (সিএলসি) স্থাপন করেছে। ম্যারিকো বাংলাদেশ ২০১৪ সালে আইসিএমএবির বেস্ট করপোরেট অ্যাওয়ার্ড-২০১৪ হিসেবে ‘সর্টিফিকেট অব মেরিট’ লাভ করেছে।

Facebook Comments

এ সংক্রান্ত আরো খবর




সম্পাদক: আরিফা রহমান

২৮/এফ ট্রয়োনবী সার্কুলার রোড, ৫ম তলা, মতিঝিল, ঢাকা।
সর্বক্ষণিক যোগাযোগ: ০১৭১১-০২৪২৩৩
ই-মেইল ॥ sangbad24.net@gmail.com
© 2016 allrights reserved to Sangbad24.Net | Desing & Development BY PopularITLtd.Com, Server Manneged BY PopularServer.Com